এবার পুরো পৃথিবী বাংলায়

❤️ভর্তা রেসিপি।

328

- Advertisement -

“ভর্তা” কি জিভেজল চলে এল তো।আমরা বাঙালীদের কাছে যে কোন কিছুর ভর্তা ভাতের সাথে আকর্ষণীয় খাবার।ভর্তা পছন্দ নয় এমন বাঙালী পাওয়া দূরহ। এটির রেসিপিও খুবই সহজ,তাই প্রাচীন আমল থেকেই এটির প্রচলন রয়েছে। ভর্তা আমাদের নানী দাদী দের হাত ধরে এসে আধুনিক সমাজেও বেশ সমাদৃত হয়ছে। তো হঠাৎ ভর্তা কেন? হা ঠিক ধরেছেন! আসছে নববর্ষ। এই দিনে কি ভর্তা না হলে কি চলে।পহেলা বৈশাখকে সামনে রেখে আজ শিখে নিন সুস্বাদু কিছু ভর্তার রেসিপি-

**আলুভর্তা-

উপকরণঃ

  • আলু- ৫০০ গ্রাম,
  • পেঁয়াজ কুঁচি- ৪ টেবিল চামচ,
  • কাঁচামরিচ কুচি/শুকনো মরিচ- ১ চা চামচ,
  • ধনেপাতা কুচি- ১ চা চমচ,
  • সরিষার তেল- ১ টেবিল চামচ,
  • লবণ- স্বাদ অনুযায়ী।

প্রস্তুত প্রণালীঃ

*প্রথমে আলু পরিমাণ মতো পানি দিয়ে সেদ্ধ করে গরম অবস্থায় খোসা ছাড়িয়ে হাত দিয়ে চটকিয়ে নিন। *কিছু পেয়াজ ভেজে,একটি বাটিতে তুলে নিন। *এরপর ঠাণ্ডা হয়ে এলে তাতে একে একে পেঁয়াজ কুচি, ধনেপাতা ও কাঁচামরিচ কুচি, আলু, স্বাদ অনুযায়ী লবণ এবং সরিষার তেল দিয়ে ভালো করে একসঙ্গে চটকিয়ে তৈরি করুন আলুভর্তা। *ঘি ডিম ভাল লাগে তা পছন্দমত যোগ করতে পারেন।

**বেগুনের ভর্তা

উপকরন: –

  • বড় গোলবেগুন ১টি, –
  • সরিষা বাটা ১ চা চামচ,
  • নারকেলবাটা ২ চা চামচ,
  • পেঁয়াজ কুচি আধা কাপ,
  • মেথি ১/২ চা চামচ,
  • সরিষার তেল ২ টেবিল চামচ,
  • শুকনা মরিচ ২টা,
  • ধনেপাতা কুচি ২ টেবিল চামচ,
  • লবণ স্বাদমতো।

প্রস্তুত প্রণালীঃ বেগুনে তেল মাখিয়ে পুড়িয়ে নিতে হবে। এরপর ঠাণ্ডা করে খোসা ছাড়িয়ে মেখে রাখুন। কড়াইয়ে তেল গরম করে মেথি ফোঁড়ন দিয়ে পেঁয়াজ কুচি দিন। পেঁয়াজ একটু নরম হয়ে এলে শুকনো মরিচ, সরিষা, নারকেল ও লবণ দিয়ে কিছুক্ষণ নাড়ুন। এরপর মেখে রাখা বেগুনটাও দিয়ে দিন। কড়াইয়ের তলা ছেড়ে এলে এবং নামানোর আগে ধনেপাতা কুচি দিয়ে নামিয়ে নিন।চাইলে লেবুর রস যোগ করতে পারেন।এতে স্বাদে ভিন্নতা আসবে।

**মসুর ডালের ভর্তা

- Advertisement -

প্রস্তুত প্রণালীঃ অনেক সময় রান্না করা ডাল থেকে যায়।ঐ ডাল জ্বাল দিয়ে শুকিয়ে নিন অথবা এক কাপ মসুর ডাল সাড়ে তিন কাপ পানি ও আধাচামচ রসুন কুচি দিয়ে সিদ্ধ করে নিন। ডাল ঘন হয়ে এলে নামিয়েনিন। এর সাথে ১ চা চামচ পেঁয়াজকুচি, ২টি কাঁচামরিচ ফালি, ১ চা চামচ সরিষা তেল ও আধা চা চামচ লবণ দিন। চাইলে লেবুর রসও দিতে পারেন। সব উপকরণ দিয়ে মাখিয়ে নিলেই হয়ে যাবে ডালের ভর্তা ।

**টমেটো ভর্তা

উপকরণ :

  •   টামেটো
  • কাঁচামরিচ
  • পেয়াজ কুচি
  • ধনে পাতা
  • শুকনা মরিচ পোড়া
  • লবণ স্বাদমতো।

প্রস্তুত প্রণালী :

প্রথমে টমেটো পানিতে সিদ্ধ করে নিতে হবে। এরপর এর খোসা ছাড়িয়ে হাত দিয়ে চটকে ভর্তা করে রাখতে হবে। এবার চুলায় সরিষার তেল দিয়ে তাতে কাঁচামরিচ, পেয়াজ, ধনে পাতা দিয়ে কষাতে হবে। এরপর এটি টমেটোর মধ্যে দিয়ে হাত দিয়ে মিশাতে হবে। বাহ হয়ে গেল তো টমেটোর ভর্তা।তবে খেয়াল রাখবেন টমেটো সিদ্ধতে যেন পানি না থাকে।

**চ্যাপা শুঁটকির ভর্তা

উপকরণ : –

  • চ্যাপা শুঁটকি ৫-৬টি ,
  • শুকনো মরিচ ৫-৬টি,
  • পেঁয়াজ মিহি করে কাটা আধা কাপ,
  • রসুন মিহি করে কাটা ২ টেবিল চামচ,
  • পরিমাণমতো সরিষা তেল এবং
  • লবণ স্বাদ অনুযায়ী।

প্রস্তুত প্রণালী :

প্রথমে চ্যাপ শুঁটকির আঁশ পরিষ্কার করে মাছ ভালো করে ধুয়ে রাখুন। এরপর একটি ফ্রাইপ্যানে পরিমাণমতো তেলে কিছু পেঁয়াজ কুচি ও শুকনো মরিচ ভেজে নিয়ে পাটায় রসুন কুচি ও চ্যাপা শুঁটকি এবং স্বাদ অনুযায়ী লবণসহ মিহি করে বেটে নিন। পরে একটি ফ্রাইপ্যানে অল্প তেলে পেঁয়াজ কুচি ভাজা ভাজা করে তাতে চ্যাপা শুঁটকি বাটা দিয়ে ভালোভাবে ভুনা করে নামিয়ে পরিবেশন করুন।তৈরী হয়ে গেল মজাদার ভর্তা।

মন্তব্য
লোডিং...