এবার পুরো পৃথিবী বাংলায়

চুরি যাওয়া স্মার্টফোন? ১০ গুরত্বপূর্ণ ধাপে সুরক্ষিত থাকুন

0 63

- Advertisement -

mobile theftআপনার মূল্যবান এন্ড্রয়েড ফোনটি হারিয়ে গেলে কি করবেন? কি করবেন যদি কেউ চুরি করে বা ছিনতাই হয়ে যায়?

শখের ফোনটি হারিয়ে পাবার আশা ছেড়ে দেবার আগে ফিরে পাবার একটা চেষ্টা করা যায়। আসুন দেখা যাক কিভাবে ফোনটি বেহাত হয়ে গেলেও ফোনটি লক করবেন, ফোনে সেভ করা ডাটার অপব্যবহার হবার আগেই মুছে ফেলবেন। আপনার ফোনটি কোথায় আছে সেটিও আপনি বের করতে পারবেন যদি ভাগ্য একটু সাহায্য করে।

বর্তমানের এন্ড্রয়েডগুলোর বেশিরভাগে অপারেটিং সিস্টেম 4.0 অথবা এরচেয়ে উন্নত ধরে নিয়ে লিখছি।

১। Mobile Anti-theft। আমার মোবাইলে এই এপসটি আগে থেকেই আছে। যদি কারো না থাকে তাহলে Play Store থেকে ডাউনলোড করে নিতে হবে।

২। Settings থেকে Security অপশনে যান। স্ক্রল করে দেখুন Mobile Anti-theft আছে কিনা। যদি থাকে তাহলে ক্লিক করুন। ৬ থেকে ১২ অক্ষরের PIN চাইবে। PIN দিন নিজের সুবিধা মত। PIN টি ভুলে যাবেন না। NEXT এ ক্লিক করলে Emergency Contact হিসেবে অন্যকারো ফোন নাম্বার চাইবে। আপনি নিজেরই অন্যফোনের নাম্বার বা আপনার নিকট পরিচিত কারো ফোন নাম্বার Emergency Contact হিসেবে দিতে পারেন। ঐ নাম্বারটি একটি Remote Control এর মত কাজ করবে যা দিয়ে আপনার ফোনের কিছু কিছু বিষয় নিয়ন্ত্রণ করা যাবে। ফোন নাম্বার দিয়ে Next চেপে পরবর্তী ধাপে যান। এবার কি কি বিষয় নিয়ন্ত্রণ করতে পারবেন সেগুলো দেখানে। নিচের দিকে দেখুন “Backup the remote control commands to emergency contacts via sms” এর check box আছে। টিক দিয়ে Done ক্লিক করুন। এবার আপনার ফোন থেকে আপনার Emergency Contact এ Command সম্বলিত একটি মেসেজ যাবে। মেসেজটি সংরক্ষন করুন। ।

৩। Mobile Anti-theft অন করার পর পরীক্ষামূলকভাবে ঐ নাম্বার থেকে আপনার মোবাইলে ‪#‎lock# লিখে মেসেজ পাঠান। দেখবেন মেসেজ ডেলিভারি হবার সাথে সাথে আপনার ফোনটি লক হয়ে যাবে। password ছাড়া এই ফোন আর আনলক হবে না। আনলক করার জন্য যে পিন দিয়ে Mobile Anti-theft চালু করেছিলেন সে পিনটি দিন। যদি আনলক না হয় তাহলে ঐ নাম্বারটি থেকে আপনার নাম্বারে‪#‎password# লিখে পুনরায় মেসেজ পাঠান। ফিরতি মেসেজে আপনি আপনার পাসওয়ার্ড পেয়ে যাবেন। যদি আপনার হারিয়ে যাওয়া বা চুরি হওয়া ফোনের ডাটা অপব্যবহারের ভয় পেয়ে থাকেন এবং সব ডাটা মুছে ফেলতে চান তাহলে‪#‎delete# লিখে ঐ নাম্বার থেকে আপনার ফোনে মেসেজ পাঠান। সব ডাটা মুছে যাবে।

৪। যদি চোর আপনার ফোনের সীম পালটে ফেলে তাহলেও সমস্যা নেই। নতুন নাম্বার থেকে আপনার Emergency Contact এ মেসেজ আসবে। যতবার পরিবর্তন করবে ততবারই আসবে।

৫। যাদের মোবাইলে Mobile Anti-theft অপশনটি নেই তারাও এই সুবিধাটি পেতে পারেন Android device manager এর মাধ্যমে। ADM এর মাধ্যমে বাড়তি যে সুবিধাটি পাবেন সেটি হল আপনার ফোনটি কোথায় আছে সেটাও জানতে পারবেন।

- Advertisement -

৬। এই সুবিধাটি পেতে আপনার Gmail একাউন্ট দিয়ে Play Store এ লগইন করা থাকতে হবে। কাজেই Gmail একাউন্ট না থাকলে খুলে নিয়ে প্লে স্টোরে লগইন করে ফেলুন।

৭। এবার Settings থেকে Security তে গিয়ে Device Manager এ ক্লিক করুন। Android Device Manager এর পাশের Check Box এ টিক দিয়ে বেড়িয়ে আসুন।

৮। এবার কোন কম্প্যূটার বা ফোনের ব্রাউজারে ঢুকে ADM এর ওয়েব সাইটhttps://www.google.com/android/devicemanager এ যান। সাইটে প্রবেশ করতে হলে আপনার Gmail আইডি পাসওয়ার্ড লাগবে। আইডি-পাসওয়ার্ড দিলেই দেখবেন আপনার Gmail আইডি দিয়ে যতগুলো এন্ড্রয়েডের Play Store বা গুগলের অন্যকোন সাইটে লগ ইন করা আছে সবগুলোর লিস্ট দেখাচ্ছে। সেখান থেকে যে ফোনটির সাথে আপনি সংযোগ স্থাপন করতে চান সেটি নির্বাচন করুন। তারপর Ring,Lock, Erase অপশন পাবেন। Ring এ ক্লিক করলে আপনার ফোনটি ৫ মিনিট ধরে বাজতে থাকবে। Lock এ ক্লিক করলে পাসওয়ার্ড চাইবে। আর Erase অপশন দ্বারা মোবাইলের সব ডাটা মুছে ফেলতে পারবেন।

৯। আর আপনার ফোনে যদি ইন্টারনেট কানেকশন ও লোকেশন সার্ভিস চালু অবস্থায় থাকে তাহলে ADM এর ওয়েবসাইটে প্রবেশ করা মাত্রই আপনার ফোনটি কোথায় আছে সেটি Map এ দেখাবে।

১০। আশা করি করতে পেরেছেন। কোন কিছু বুঝতে সমস্যা হলে বা জানতে চাইলে অবশ্যই কমেন্ট করুন।

একটা কথা মনেরাখা দরকার চুরি যাওয়া ফোন একা একা উদ্ধার অভিযানে নামলে সমূহ বিপদের ঝুঁকি থাকে। পুলিশের সাহায্য নিন। তাদের কাছে আরো উন্নত প্রযুক্তি রয়েছে।

আজ এই পর্যন্তই।

লেখক সম্পর্কঃ আহমাদ রবীন। শখের বসে টুকটাক লেখালেখি করি। ভাল লাগে বই পড়তে আর ভ্রমন করতে। জ্ঞানের যেকোন শাখাই আমাকে আগ্রহী করে। ব্যক্তিগত জীবনে একটি বেসরকারী কোম্পানিতে চাকুরীরত। সমাজ-সংসার নিয়ে সুখেই আছি।

মন্তব্য
লোডিং...