এবার পুরো পৃথিবী বাংলায়

বাংলাদেশী বংশোদ্ভূত বিদেশী ইউটিউবার যারা দুনিয়া কাঁপাচ্ছেন!

বর্তমানে বাংলাদেশের ইউটিউব প্ল্যাটফর্মে রোস্টিং-পাল্টা রোস্টিং নিয়ে ঝড়-তুফান বয়ে চলেছে। কথা উঠছে রোস্টিং করা কি উচিৎ কি না, কিংবা বিদেশী ইউটিউবারেরা কেন দেশি ইউটিউবারদের রোস্ট করবে কিংবা এই ধরনেরই আর কি। তবে আসুন জেনে নেই, বাংলাদেশী বংশোদ্ভূত তিনজন বিদেশী ইউটিউবার, যারা আক্ষরিক অর্থেই দুনিয়া কাঁপাচ্ছেন।

১. রাহাত হোসেইনঃ ম্যাজিশিয়ান ও প্র্যাংস্টার রাহাত ১৯৮৯ সালের ১৯শে ডিসেম্বর আমেরিকার ভার্জিনিয়াতে জন্মগ্রহন করেন। তার বাবা-মা দুজনেই বাংলাদেশী। ২০০৯ সালে ওল্ড ডোমিনিওন ইউনিভার্সিটিতে ক্রিমিনাল জাস্টিস নিয়ে পড়াশুনা শুরু করেন। এছাড়া কলেযে পড়াশুনা করা অবস্থাতেই তিনি প্রথম ভিডিও আপলোড শুরু করেন। শুরুতে বিভিন্ন কার্ড ট্রিক্স, ডাক্ট টেপ টাইপের ম্যাজিক রেকর্ড করতেন। ইউটিউবে তার প্রথম ভিডিওর নাম ছিল “Maxi-Twist by Rahat”। বর্তমানে তিনি “MagicOfRahat” নামের একটি তুমুল জনপ্রিয় চ্যানেলের মালিক, বর্তমানে যার সাবস্ক্রাইবার সংখ্যা ৪.৭ মিলিয়নেরও বেশি। এছাড়াও তার “RahatsIphone” নামে আরেকটি ইউটিউব চ্যানেলও আছে, যেখানে তিনি ম্যাজিকের চেয়ে সাধারনত Vlog আপলোড করে থাকেন। এমনকি YouTube Red তেও রাহাত শো করেছেন।

২০১৪ সালে রাহাতের “Homeless lottery winner” শিরোনামের একটি ভিডিও তুমুল জনপ্রিয়তা পায় যেখানে সে এরিক নামের একজন হোমলেস লোককে একটি ভুয়া ১০০০ ডলারের টিকেট দেয়। পরবর্তিতে ক্যাশ কাউন্টারে যখন এরিক ওই লটারি ভাঙাতে যায়, তখন তাকে ১০০০ ডলার দেওয়া হয়, কারন পুরোটাই ছিল রাহাতের সেট-আপ। এরিক খুশিতে কেদে ফেলে যা বিশ্ববাসীর চোখেও পানি এনে দেয়। পরবর্তিতে রাহাত এরিকের জন্য সাহায্য কালেকশন শুরু করলে প্রায় ৩০০০ লোক ৪৪০০০ ডলারের সাহায্য পাঠায়। সেই টাকায় রাহাত এরিকের জন্য ঘরের ব্যাবস্থা করে। বর্তমানে এরিক একটি দোকানে কাজ করে জীবিকা নির্বাহ করে।

রাহাত বর্তমানে একটি কার প্র্যাং শো করে, যেখানে সে নিজের ক্রিয়েটিভিটি দারুনভাবে ফুটিয়ে তুলতে সমর্থ হচ্ছে।

রাহাতের চ্যানেল লিংকঃ MagicOfRahat ; RahatsIphone

২. নাবিলা নুরঃ বিউটি, ফ্যাশন ও লাইফস্টাইল কুইন নাবিলা নুর ১৯৯১ সালের ৪ই আগস্ট নিউইয়র্কে জন্মগ্রহণ করেন। বর্তমানে তিনি পেনিনসিলভিয়াতে বাস থাকেন। তার দুই বড় ভাই ও এক বড় বোনের জন্ম বাংলাদেশে। যখন তিনি মায়ের গর্ভে ছিলেন তখন তারা নিউইয়র্কে চলে গিয়েছিল। এছারাও তার দুটি ছোট বোনও রয়েছে। নাবিলা ২০১৫ সালে বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হন। তিনি ইউটিউবে নারীজগতে বিউটি ভ্লগিং সেনসেশন হিসাবে তুমুল জনপ্রিয়। তার ইউটিউব চ্যানেল “Nabela Noor” এ সাবস্ক্রাইবার সংখ্যা প্রায় সাড়ে তিন লক্ষ ও মোট ভিউ প্রায় ২.৪ মিলিয়ন। এছাড়াও “Living Noor” নামে তার আরো একটি চ্যানেল আছে যেখানে সে সাধারনত Vlog আপলোড দিয়ে থাকেন।

নাবিলার চ্যানেল লিংকঃ Nabela Noor ; Living Noor 

৩. শেখ আকবরঃ সোস্যাল মিডিয়া সেনসেশন হিসেবে খ্যাত শেখ আকবরের জন্ম নিউইয়র্কের ব্রুকলিনে। তার পিতামাতা উভয়েই বাংলাদেশী। তার আর তিনজন ভাই ও এক বোন রয়েছে। তিনি জন জে কলেজে ক্রিমিন্যাল জাস্টিস বিষয়ে পড়াশুনা করেন। ইউটিউবে তিনি “TrueStoryASA” নামের একটি চ্যানেলে Adam Saleh নামের একজনের সাথে কোলাবরেশন ভিডিও বের করতেন, যেখানে তারা আমেরিকার পথেঘাটে ইসলামের ব্যাপারে পজিটিভ ম্যাসেজ ও বিভিন্ন সোস্যাল এক্সপেরিমেন্ট করতেন। বর্তমানে তিনি নিজের চ্যানেলেই ভিডিও আপলোড করেন। “TrueStoryASA” চ্যানেলে তার প্রথম ভিডিও ৬ই জানুয়ারি, ২০১২ সালে প্রকাশিত হয়।

তার ইন্সটাগ্রামের ফলোয়ার সংখ্যা এক লক্ষেরও অধিক।

শেখ আকবরের চ্যানেল লিংকঃ Sheikh Akbar ; Sheikh Akbar Vlogs 

 

 

মন্তব্য
লোডিং...