এবার পুরো পৃথিবী বাংলায়

মাশরাফির বিদায় ও সাকিবের ফেরা; বাংলাদেশ-উইন্ডিজকে বরণের অপেক্ষায় ২২ গজ

Bangladesh Vs West Indies Cricket Series 2021

২০২০ সালের মার্চ মাসে সর্বশেষ আন্তর্জাতিক ম্যাচ খেলেছিল বাংলাদেশ দল। জিম্বাবুয়ে ও বাংলাদেশের মধ্যকার সেই সিরিজ শেষ হতে না হতেই শুরু হয়ে গিয়েছিল করোনার প্রকোপ। সেই সিরিজে সর্বশেষ বাংলাদেশের পক্ষে ২২ গজে নেমেছিলেন মাশরাফি বিন মুর্তজা। সাকিব আল হাসান ছিলেন না সেই সিরিজে, কারণটা আইসিসির নিষেধাজ্ঞা। এই দুইজনকে হয়তো আর কখনোই একসাথে লাল-সবুজের জার্সি গায়ে দেখা যাবে না। কারণ মাশরাফির অধ্যায়টা যে বন্ধ করে দিলো বাংলাদেশ। দেশের ক্রিকেটের স্বার্থেই মাশরাফিকে রাখা হয়নি স্কোয়াডে। নিষেধাজ্ঞা কাটিয়ে ক্রিকেটে ফিরছেন সাকিব ও করোনার প্রকোপ ভুলে বাংলাদেশে ফিরছে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট, বাংলাদেশ ফিরছে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে, বাংলাদেশ বনাম ওয়েস্ট ইন্ডিজ ২০২১ দিয়ে । বাংলাদেশ ও ওয়েস্ট ইন্ডিজকে বরণের অপেক্ষায় আছে মিরপুরের হোম অব ক্রিকেট।

দেখে নেওয়া যাক বাংলাদেশ বনাম ওয়েস্ট ইন্ডিজ সিরিজের সময়সূচি

তিন ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজ:

প্রথম ওয়ানডে: ২০ জানুয়ারি (বুধবার), শেরেবাংলা স্টেডিয়াম, মিরপুর

দ্বিতীয় ওয়ানডে: ২২ জানুয়ারি (শুক্রবার), শেরেবাংলা স্টেডিয়াম, মিরপুর

তৃতীয় ওয়ানডে: ২৫ জানুয়ারি (রবিবার), জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়াম, ‍চট্টগ্রাম

চার দিনের প্রস্তুতি ম্যাচ:

২৮-৩১ জানুয়ারি (বৃহস্পতিবার-রবিবার), এমএ আজিজ স্টেডিয়াম, চট্টগ্রাম

দুই ম্যাচের টেস্ট সিরিজ:

প্রথম টেস্ট: ৩-৭ ফেব্রুয়ারি (বুধবার-রবিবার), জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়াম, ‍চট্টগ্রাম

দ্বিতীয় টেস্ট: ১১-১৫ ফেব্রুয়ারি (বৃহস্পতিবার-সোমবার), শেরেবাংলা স্টেডিয়াম, মিরপুর

মাশরাফি অধ্যায়

২০০১ সালের নভেম্বরে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে টেস্ট ম্যাচ দিয়ে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে পা রেখেছিলেন মাশরাফি। একই মাসে একই দলের বিপক্ষে ওয়ানডে অভিষেক হয় তার। বাংলাদেশের প্রথম টি-টোয়েন্টি ম্যাচ থেকেই দলে আছেন তিনি। ইঞ্জুরির প্রকোপে তার টেস্ট ক্যারিয়ার প্রশস্ত হয়নি। সেই ২০০৯ সালে সর্বশেষ টেস্ট ম্যাচ খেলেছেন মাশরাফি। একেরপর এক চোটের কারণে অনেক ম্যাচ খেলতে পারেননি তিনি কিন্তু ইঞ্জুরি ব্যতীত কখনো দল থেকে বাদ পড়তে হয়নি মাশরাফিকে। অনেক অল্প বয়সেই জীবনের অনেক মোড় দেখা মাশরাফি ৭টি অস্ত্রোপচারের পরেও থেমে থাকেননি। ‘পা দুটো বেঈমানী করলেও ঘাড়ের রগ বাঁকিয়ে দেশের জন্য একটি বল কর‍তে চাই’– বলা সেই মাশরাফিকে আর দলে প্রয়োজন নেই বলে দিয়েছেন বাংলাদেশ দলের নির্বাচকরা।

মাশরাফি বিন মুর্তজা
মাশরাফি বিন মুর্তজা। ছবি : ইন্টারনেট।

বাংলাদেশ দল এখন এগিয়ে যাচ্ছে ২০২৩ ওয়ানডে বিশ্বকাপের পরিকল্পনা করে। ৩৭ বছর বয়সী মাশরাফি সেই বিশ্বকাপে থাকবেন না সেটা অনুমিতই। বাংলাদেশের ৪টি বিশ্বকাপ খেলা মাশরাফিকে তাই তিন বছর আগেই জায়গা ছেড়ে দিতে হলো নতুন কারো জন্য। হ্যা, এটাই তো নিয়ম। কবি বলেছেন, ‘এসেছে নতুন শিশু, তাকে ছেড়ে দিতে হবে স্থান’। তবে এখনো অবসর নেননি মাশরাফি। আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টি ক্রিকেট থেকে আনুষ্ঠানিক অবসর নিলেও ওয়ানডে ও টেস্ট থেকে এখনো অবসরের ঘোষণা দেননি। অধিনায়কত্ব ছাড়ার সময়েই তিনি বলেছিলেন, মনের আনন্দে আরও কিছুদিন খেলে যেতে চান তিনি হোক সেটা জাতীয় দল কিংবা ঘরোয়া ক্রিকেট।

সামনে ওয়েস্ট ইন্ডিজ সিরিজ, তাই দেখে নেওয়া যাক ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে মাশরাফির পরিসংখ্যান। ক্যারিবিয়ানদের বিপক্ষে ওয়ানডেতে মাশরাফি শিকার করেছেন ৩০টি উইকেট।


সাকিবের প্রত্যাবর্তন

২০১৯ সালের অক্টোবর। ভারত সফর ও টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপে নিজেদের অভিষেকের জন্য প্রস্তুতির মধ্যেই অধিকার আদায়ের দাবিতে আন্দোলনে যায় বাংলাদেশের ক্রিকেটাররা। তারপরেই আসে সেই দুঃসংবাদ। একবছরের জন্য নিষিদ্ধ হন সাকিব আল হাসান। অবশ্য সাকিবের এই নিষেধাজ্ঞার কালে বাংলাদেশকে খুব বেশি ম্যাচ খেলতে হয়নি। কেবল ভারত, পাকিস্তান ও ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে সিরিজ খেলেছে বাংলাদেশ দল। তারপর থেকেই করোনার কারণে থমকে ছিল বাংলাদেশের ক্রিকেট।

সাকিব আল হাসান
সাকিব আল হাসান। ছবি : এএফপি।

গত বছর মার্চ মাসের পরে আবার এই প্রথম আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে লড়াই করতে যাচ্ছে বাংলাদেশ দল। এবারও আছে এক অভিষেকের উপলক্ষ, ওয়ানডে বিশ্বকাপের সুপার লিগে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষেই অভিষেক হতে যাচ্ছে বাংলাদেশের। সেই সাথে নতুন শুরু হতে যাচ্ছে বাংলাদেশ ক্রিকেটের পোস্টারবয় সাকিব আল হাসানের। নিষেধাজ্ঞা কাটিয়ে এখনো আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে না ফিরলেও ওয়ানডে ক্রিকেটে শীর্ষ অলরাউন্ডার হিসেবেই এখনো জায়গা ধরে রেখেছেন তিনি। টেস্টে চতুর্থ স্থানে এবং টি-টোয়েন্টিতে দ্বিতীয় স্থানে নেমে গিয়েছেন সাকিব।

ইতোমধ্যে অবশ্য নিষেধাজ্ঞা কাটিয়ে ২২ গজেও ফিরেছেন সাকিব। বঙ্গবন্ধু টি-টোয়েন্টি কাপে চ্যাম্পিয়ন জেমকন খুলনার পক্ষে খেলেছেন তিনি। তবে টুর্নামেন্টটিতে নামের প্রতি বিচার করতে পারেননি সাকিব। ঘরোয়া টুর্নামেন্টটিতে ভালো করতে না পারলেও আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে সাকিব ঠিকই স্বরূপে ফিরবেন- এমনটাই প্রত্যাশা সবার।

সামনেই ওয়েস্ট ইন্ডিজ সিরিজ। এই দলটির বিপক্ষে ১৮টি ওয়ানডে ম্যাচে সাকিব ব্যাট হাতে করেছেন ৭২১ রান এবং বল হাতে শিকার করেছেন ১৮টি উইকেট। টেস্ট ক্রিকেটে ১০ ম্যাচে ৭৪৫ রান ও ৪৬টি উইকেট শিকার করেছেন সাকিব আল হাসান।

বাংলাদেশ ক্রিকেট দল
বাংলাদেশ ক্রিকেট দল। ছবি : ইন্টারনেট।


বাংলাদেশ বনাম ওয়েস্ট ইন্ডিজ সিরিজ ২০২১

বাংলাদেশ ক্রিকেটের পুরানো বন্ধু ওয়েস্ট ইন্ডিজ। করোনার কারণে দীর্ঘ প্রায় ১০ মাস বাংলাদেশে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট বন্ধ থাকার পরে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে সিরিজ দিয়েই ফিরতে যাচ্ছে ২২ গজের লড়াই। তবে আগের মতো হবে না সহসায়, গ্যালারিতে দর্শক প্রবেশ নিষেধসহ আরও অনেক সীমাবদ্ধতা দেখা যাবে এবারের সিরিজে।

ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে বাংলাদেশের যেমন দুঃসহ স্মৃতি আছে, আছে তেমনই সুখস্মৃতিও। ২০১১ সালের বিশ্বকাপে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে মাত্র ৫৮ রানে গুটিয়ে গিয়েছিল বাংলাদেশ দল। আবার সেই বছরেই ওয়েস্ট ইন্ডিজকে ৬১ রানে অলআউট করে প্রতিশোধ নেয় বাংলাদেশ। ওয়ানডেতে ২০০৯ সালের আগে পর্যন্ত ছিল ওয়েস্ট ইন্ডিজের এক আধিপত্য। ২০০৯ সালে প্রথমবারের মতো ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে সিরিজ জয় করে বাংলাদেশ। ওয়েস্ট ইন্ডিজেরই মাটিতে তাদেরকে হোয়াইটওয়াশ করেছিল টাইগাররা। তারপর থেকে টাইগারদের আধিপত্য ও লড়াই চলছে দুই দলের মধ্যে।

আরো পড়ুনটেস্ট ক্রিকেটে বাংলাদেশের বর্ষপূর্তি, আসবে এবার থেকে পরিবর্তন?

আসন্ন সিরিজেও লড়াইয়ের আশা করা হচ্ছে। তবে ওয়েস্ট ইন্ডিজ এবার আনকোরা দল নিয়ে সফরে আসছে। নিয়মিত দলের ১০ জন ক্রিকেটারই এই সফরে আসছেন না। তবে তাই বলে তাদের বিপক্ষে লড়াই খুব সহজ হবে এটা ভাবা বোকামি হবে কারণ আন্তর্জাতিক অঙ্গনে অপরিচিত ক্রিকেটাররাও হয়ে উঠতে পারেন হুমকির কারণ। তাই অপেক্ষাকৃত খর্ব শক্তির এই ওয়েস্ট ইন্ডিজ দলকে হালকাভাবে নেওয়ার কোনো কারণ নেই।

মন্তব্য
লোডিং...