এবার পুরো পৃথিবী বাংলায়

মাইক্রোসফট এক্সেল শিখুনঃ সময় বাঁচিয়ে এগিয়ে যান সবার আগে

পৃথিবীটা দিন দিন ছোট হয়ে আসছে ।  বর্তমান প্রতিযোগিতামূলক বাজারে সবাই ছুটে চলছে । সেক্ষেত্রে কলম ,খাতা ,মিটার, ক্যালকুলেটরেরে মাধ্যমে বিশাল বিশাল ডাটা হিসাব করা সময়সাপেক্ষ ব্যাপার  তাই এক্ষেত্রে মাইক্রোসফট এক্সেলের কোন বিকল্প নেই । এক্সেল এমন একটি মাইক্রোসফট সফটওয়্যার যার মাধ্যমে বিশাল বিশাল ডাটার হিসাব রাখতে পারেন ,গবেষণা করতে পারেন এবং তুলনা করতে পারেন। যেকোন পেশার জন্য একমাসের কাজকে একঘণ্টায় করার ক্ষেত্রে এক্সেলের কোন জুড়ি নেই।

এবার আসি মাইক্রোসফট এক্সেলের কি কি ফাংশন আর টুলস শিখে রাখতে পারেন যা আপনার পেশাদারিত্বকে আরও শানিত করতে পারে ।

 এক্সেলের সাধারণ কাজঃ

যারা এক্সেলের কাজ নতুন শিখছেন তাদের জন্য প্রাথমিকভাবে সাধারণ কিছু এক্সেলের কাজ শিখে রাখা দরকার ।

এক্সেলের সাহায্যে AutoSum এর মাধ্যমে সহজে যোগ , বিয়োগ , গুন , ভাগ ,গড়  যেমন করা যায় । তেমনি Freeze Panes ,Gridlines, Formula Bar, Column Name & Row no, Hide/Unhide , Data Sorting এর মাধ্যমে কাজকে আরও সুন্দর করে উপস্থাপন করা যায়।

Data Validation, Conditional Formatting , Duplicate Data Find Out এর মাধ্যমে কম সময়ে বিশাল ডাটার সমুদ্র থেকে ডাটা খুঁজে বের করা যায় ।

Time Value of Money এর মাধ্যমে Present & Future Value বের করা যায় ।

এছাড়া Goal Seek , Data Fill এবং BINARY, DECIMAL, OCTAL & HEXADECIMAL Number কে এক্সেলর মাধ্যমে কনভার্ট করা যায়।

এডভান্সড এক্সেলঃ

আজকাল বিভিন্ন মাল্টিন্যাশনাল বা ন্যাশনাল প্রতিষ্ঠানে দৈনিক , সাপ্তাহিক , পাক্ষিক, মাসিক, ত্রৈমাসিক, হাফ ইয়ারলি, ইয়ারলি রিপোর্ট করতেই হয়।এমনকি মাঝে মাঝে অফিস ম্যানেজমেন্ট হঠাৎ করে কম সময়ের মধ্যে রিপোর্ট চেয়ে বসে । এছাড়া মাল্টিন্যাশানাল কোম্পানিতে আজকাল অনলাইনে সেইলস ইনপুট দিতে হয় তাই নানা ডাটা নিজের কাছেই সর্টিং করে রাখতে হয় এবং বিভিন্ন কনভেনশান বা মিটিং এ সেলস ম্যানেজার, টেরিটরি ম্যানেজার বা অফিসারদের নিজেদের প্রেজেন্ট করতে নানা ধরনের এক্সট্রা সেলস ডাটা এনালাইসিস করে উপস্থাপন করতে হয়।

তাই VLOOKUP, HLOOKUP ফাংশানগুলোর ব্যবহার, Pivot Table এর কাজ এবং তার ব্যবহার সেই সাথে Chart পড়া এবং তার গ্রাফিকাল প্রেজেন্টেশান জানা থাকলে সময়কে নিতে পারেন নিজের হাতের মুঠোয় । কারণ এই ফাংশন গুলোর মাধ্যমে সহজে Data Summary করার মাধ্যমে সার্বিক ধারণা পাওয়া যায় ।

সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ বিষয় হল , বিভিন্ন function এর ব্যবহার , What, if ফাংশন এর সূত্র ইত্যাদি জানা থাকলে ডাটাগুলোকে নিয়ে আপনি যেভাবে ইচ্ছা সেভাবে কাজ করতে পারেন । এগুলোর মাধ্যমে বিশাল বিশাল ডাটা নিয়ে কম সময়ে কাজ করা যায় এবং কাস্টমারদের এবং কোম্পানি ম্যানেজমেন্টের চাহিদা অনুযায়ী তাদের রিপোর্ট করা যায় নির্দিষ্ট ডেডলাইনের মধ্যে ।

Hyperlink এর মাধ্যমে বিভিন্ন ডাটা ,ডকুমেন্ট , পেজ  বা রিপোর্ট লিংক করা যায় যাতে এক ক্লিকে খুঁজে পাওয়া যায় সহজে । এছাড়া Dashboard, Macro এর ব্যবহার জানা অনস্বীকার্য ।

পরিশেষে আপনি যদি এক্সেলের সব এপ্লিকেশন শিখে মাস্টার হয়ে যেতে পারেন তাহলে আপনি কোথাও আটকে থাকবেন না ।ছুটে চলবেন সময়ের আগে,  হয়ে যাবেন পদোন্নতির সবচেয়ে কাছাকাছি এবং সেই সাথে প্রতিযোগিতামূলক বাজারে সবচাইতে কাঙ্খিত ব্যক্তি  ।

মন্তব্য
লোডিং...