এবার পুরো পৃথিবী বাংলায়

জানেন কি- কাঁটা চামচ এলো কিভাবে?

61

- Advertisement -

আজকে কাঁটা চামচের ইতিহাসটা বলবো । কৌতুহল উদ্দীপক প্রশ্ন ,”’আচ্ছা কাঁটা চামচ কোথা থেকে এলো ?

অনেকেই বলতে পারে কাঁটা চামচের উদ্ভব চীন দেশে । চীনের সাথে কাঁটা চামচের একটা সম্পর্ক থাকতে পারে । কারণ চীন বহুকাল আগে থেকেই চপ স্টিক্সের ব্যবহার  করে আসছে ।  কিন্তু আসলেই কি চীন থেকে এসেছে কাঁটা চামচ ?

কাঁটা চামচের উদ্ভবটা মূলত রোমান সাম্রাজ্যে । চীনে নয় । প্রত্নতাত্ত্বিক ইতিহাস ঘাঁটলে দেখা যায় পূর্ব রোমান সাম্রাজ্যে কাঁটা চামচের ব্যবহার ছিল । এরপর এটা বিস্মৃত হয় দক্ষিন ইউরোপের দিকে । আঠারো   শতকের আগ পর্যন্ত উত্তর ইউরোপে কাঁটা চামচের প্রচলন এতোটা ছিল না । আর উনিশ শতকের নর্থ আনেরিকায় কাঁটাচামচের ব্যবহার শুরু হয় নি ।

প্রাচীন মিসরে কাঁটাচামচের ব্যবহার লক্ষ্য করা যায় । সেখানে বড় আকারের কাঁটাচামচ রান্নাবান্নার কাজে ব্যবহার করা হতো । এছাড়া ব্রোঞ্জ যুগে কাইজিয়া কালচারে পশুর হাড়ের তৈরি কাঁটা চামচের ব্যবহার লক্ষ্য করা যায় । চীনা সাম্রাজ্য এবং প্রাচীন গ্রীক আমলেও কাঁটাচামচের ব্যবহার ছিল ।

৮ম বা ৯ম শতাব্দীতে পারস্য, বর্তমান ইরানে ব্যবহৃত কাঁটা চামচ

রোমান সাম্রাজ্যে ব্রোঞ্জ এবং রূপার তৈরি কাঁটাচামচের প্রচলন ছিল । পূর্ব রোমান সাম্রাজ্যে সর্বপ্রথম ব্যাক্তিগত টেবিল কাঁটাচামচের উদ্ভব হয় । ইতিহাস ঘাঁটলে দেখা যায় পারস্য সাম্রাজ্যে বার্জিন নামে এক ধরনের কাঁটাচামচের ব্যবহার হতো নবম শতকের দিকে । দশম শতকে কাঁটাচামচের ব্যবহার পুরো মধ্যপ্রাচ্যে ছড়িয়ে পড়ে ।

- Advertisement -

পশ্চিম ইউরোপে কাঁটাচামচের ব্যবহার শুরু হয় রোমান সম্রাট দ্বিতীয় ওটোর আমলে । এগার শতকের দিকে ইতালিয়ান পেনিন্সুলায় কাঁটাচামচ একটি অপরিহার্য তৈজসপত্রে পরিনত হয় । পাস্তা নামক ইতিলিয়ান খাবারটিকে প্রথমে কাঠের স্পাইকের সাহায্যে খাওয়া হতো । ক্রমেই সেখান থেকে তিন মাথা ওয়ালা কাঁটাচামচের উদ্ভব হয় । ১৪  শতকের মাঝেই  কাঁটাচামচের ব্যবহার সারাবিশ্বে ছড়িয়ে পড়ে ।  একসময় অতিথিরা ব্যাক্তিগত কাঁটাচামচ এবং স্পুন নিয়ে দাওয়াত খেতে আসতেন ।  যে বাক্সে ব্যক্তিগত কাঁটাচামচ আর স্পুন থাকতো সেটিকে বলা হতো ক্যাডেনা । পরতুগালে কাঁটাচামচের প্রচলন শুরু হয় রাজা ম্যানুয়েলের আমলে । অবশ্য ১৬ শতক পর্যন্ত পশ্চিম ইউরোপে ফর্ক তথা কাতাচামচের প্রচলনটা এত ব্যাপক আকারে ছিল না । ১৮ শতকের দিকে ইউরোপ পুরপুরিভাবে ফর্কের প্রচন শুরু করে ।

১৬৪০ সালে ব্যবহৃত একটি কাঁটা চামচ

এরও অনেক পরে ১৬৯২ সালে ফ্রান্সে সম্রাট লুই এর কন্যার বিয়ের অনুষ্ঠানে কাঁটা চামচের ব্যবহার দেখা যায় ।

দক্ষিণ ইউরোপে ফর্কের ব্যবহার খুব ধীরে ধীরে শুরু হয় । ১৬ শতক পর্যন্ত এটা ছিল একটা অখ্যাত ইউরোপিয়ান কালচার ।  ১৮ শতকের দিকে গ্রেট ব্রিটেনে কাঁটাচামচের ব্যবহার একেবারেই সাধারন হয়ে যায় ।

উত্তর আমেরিকাতে বিপ্লবের আগ পর্যন্ত কাঁটাচামচের ব্যবহার খুব বেশি জনপ্রিয় হয় নি । বর্তমান সময়ে বাঁকানো কাঁটাচামচ ব্যবহার করা হয় যেটার সর্বপ্রথম প্রচলন হয়েছিল জার্মানিতে । জার্মান সংস্কৃতিতে কাঁটাচামচ খুব গুরুত্বপূর্ণ । কারণ সেখানে বিশ্বাস করা হয় খালি হাতে খাবার খাওয়া খুবই অপরিপাটি আচরণের পরিচায়ক ।

লেখক সম্পর্কেঃ আরাফাত আব্দুল্লাহ । লেখালেখির সাথে যুক্ত আছি । কিছু অনুবাদের কাজ করেছি । প্রিয় কাজ সমসাময়িক বিষয়ের উপর লেখালেখি করা ।

 

মন্তব্য
লোডিং...