এবার পুরো পৃথিবী বাংলায়

সেরা কিছু কোরিয়ান মুভি লিস্টঃপর্ব-১

আমার কোরিয়ান মুভি দেখা শুরুটা খুব বেশিদিন থেকে না। প্রায় গত পাঁচ বছর ধরে কোরিয়ান মুভি বলতে গেলে এক কথায় গোগ্রাসে গিলে চলছি। একটা আলাদা রকমের স্বাদ পাওয়া যায় তাদের মুভিতে। কাহিনীর প্লট, টুইস্ট, অভিনয়- এসব কিছুই আর দশটা মুভি থেকে একদম ভিন্ন। কোরিয়ানদের মুভি এজন্যেই দেখতে ভালোই লাগে আমার কাছে। এরা হরর এর সাথে মেশাবে ড্রামা, একশনের সাথে মেশাবে কমেডি। আর এসবে মিশ্রণ হবে একদম খাপেখাপ।

আজকে আমি  বেশকিছু ভালো ভালো কোরিয়ান মুভির  রিভিউ করব। তাই প্রথম পর্বে তিনটি মুভি নিয়ে কথা বলছি।

Extreme Job (2019)

এক্সট্রিম জব মুভিটি   রিভিউ করার আগে মুভির প্লট সম্পর্কে একটু আইডিয়া দিই।

পাঁচ সদস্যের একটা পুলিশের দল, যাদের রেকর্ড খুবই বাজে। এতই বাজে যে তাদেরকে পুলিশের চাকরি থেকে অব্যাহতি দিতে চায় পুলিশ প্রধান। নিজেদের চাকরি এবং সম্মান দুইটাই পাওয়ার সুযোগ আসে তাদের সামনে। একটি বড় ড্রাগ মাফিয়া গ্যাং ধরার জন্য এই পাঁচজনের আন্ডার কভার পুলিশের দল মিলে একটি রেস্টুরেন্টকে বেজ হিসেবে ব্যাবহার করে। সেই রেস্টুরেন্ট থেকেই তারা ওই গ্যাংদের ফলো করে। রেস্টুরেন্ট থেকে মাফিয়াদের ফলো করে তাদের সম্পর্কে বিভিন্ন তথ্য জানবে এবং এদের হাতেনাতে ধরবে এই ছিল তাদের পরিকল্পনা।

Extreme Job (2019)

কিন্তু একটা সময় ভাগ্যের জোরে পুলিশের চাকরিকে পাশে রেখে এরা শুরু করে রেস্টুরেন্ট ব্যবসা।

খাবারের মান অত্যধিক লেভেলের ভালো হওয়ার ফলে প্রতিদিনই অনেক কাস্টমার আসতেই থাকে তাদের রেস্টুরেন্টে।

এখন তারা পুলিশ হয়ে কি মাফিয়াদের পিছু নিবে নাকি রেস্টুরেন্ট ব্যবসা ভালোভাবে চালাবে সেটা নিয়েই মুভির কাহিনী সামনে এগুতে থাকে।

মুভি সম্পর্কে যদি কিছু বলতে হয় তাহলে আমি বলব কমেডি হিসেবে মুভি পারফেক্ট। খুব মজা নিয়ে দেখেছি। আর শেষের দিকের একশনটাও ঠিকঠাক ছিল। একদল নিষ্কর্মা পুলিশ অফিসারদের কাহিনীটা ভালোই লেগেছে আমার।

সিরিয়াস টাইপের মুভি দেখতে দেখতে যদি মাথা জ্যাম হয়ে যায় তাহলে এই মুভিটা দেখতে পারেন।

Extreme Job- মুভির একটি দৃশ্য

📌মুভির নাম: Extreme Job (2019)

📌জনরা: ক্রইম, একশন, কমেডি

📌অভিনয়েঃ Myeong GongLee HaneeJun-seok Heo

📌ডিরেকশনঃ  Se-Young Bae

📌আইএমডিবি রেটিংঃ /১০

The Gangster, The Cop, The Devil (2019)

“A cop team up with a gangster to catch the devils? Sounds like fun”😉

হ্যাঁ, কোরিয়ায় আবারও হানা দিয়েছে এক ভয়ংকর সিরিয়াল কিলার। বাকি অন্যদের মতন তার নেই নিজস্ব কোন কিলিং প্যাটার্ন। আর ভিকটিমদের কাউকেই সে জীবিত রাখছে না। তাই পুলিশ অফিসার কিম এর পক্ষে এই নব্য সিরিয়াল কিলারকে খুঁজে পাওয়া কষ্টকর হয়ে পড়ছে।

The Gangster, The Cop, The Devil

নিজের শিকার খুঁজতে খুঁজতে এই কিলার মুখোমুখি হয় শহরের অন্যতম গ্যাংস্টার লর্ড ডং-স’র। আর তাকেই কিনা হত্যা করতে যায় সিরিয়াল কিলার। বুঝেন অবস্থাটা।

কোনরকম বেচে ফেরে গ্যাং লর্ড। আর এরপরেই পুলিশ অফিসার কিম আর গ্যাং লর্ড ডং-স’র মধ্যে এক অলিখিত চুক্তি হয়। তারা একে অপরকে সাহায্য করবে এই সিরিয়াল কিলারের পরিচয় জানতে। তারা দুজনেই টিম আপ করে নেমে পড়ে সেই সিরিয়াল কিলারকে খুঁজতে। এই খোঁজাখুঁজি এক সময় প্রতিযোগিতায় পরিণত হয়।

কারণ কিম চায় কিলারকে গ্রেফতার করতে, আর ডং চায় তাকে শেষ করে দিতে।

এভাবেই আগাতে থাকে উত্তেজনায় ভরপুর এই মুভির প্লট।

আপনি যদি একই সাথে সিরিয়াল কিলিং, গ্যাং ওয়ার এবং একশন দেখতে চান তবে এই মুভিটি আপনার ওয়াচ লিস্টে রাখতে পারেন।

দ্য গ্যাংস্টার দ্য কপ দ্য ডেভিল মুভির প্রযোজক হিসেবে ছিলেন, র্যাম্বো হিসেবে খ্যাত সিলভেস্টার স্ট্যালন।

The Gangster, The Cop, The Devil- মুভির কেন্দ্রীয় তিন চরিত্র

📌মুভির নাম: The Gangster, The Cop, The Devil (2019)

📌জনরা: ক্রাইম, একশন, থ্রিলার

📌অভিনয়েঃ  Dong-seok MaMu-Yeol KimKim Sungkyu

📌ডিরেকশনঃ Won-Tae Lee

📌আইএমডিবি রেটিংঃ ৬.৯/১০

 

The Negotiation (2018)

এই মুভির শেষে আপনার খারাপ লাগবে বিপরীত প্রান্তের মানুষটার জন্যে

প্রায় সময় আমরা দেখি, কোন অপরাধী সংগঠন কোন কিছু আদায় করার জন্যে বা আইন শৃঙ্খলা বাহিনীকে চাপ প্রয়োগের জন্যে কাউকে জিম্মি হিসেবে নিজেদের কাছে রাখে। আর এই জিম্মি বা হোস্টেজ পরিস্থিতিকে নিয়ন্ত্রণ করার অন্যতম উপায় বলা যায় সেই অপরাধী গ্রুপের সাথে নেগোসিয়েশন করা। দুনিয়ার যেকোনো প্রান্তে জিম্মি সিচুয়েশনকে খুব সেনসিটিভ ইস্যু হিসেবে ধরা হয়, তাই যোগ্য লোককেই নেগোসিয়েটর হিসেবে নেওয়া হয়।

The Negotiation- মুভির প্লট এটার উপরই ভিত্তি করে দাঁড়ানো।

সিউল মেট্রোপলিটন পুলিশ এজেন্সির- নেগোসিয়েটর হা চে-ইয়েন এক পরিস্থিতির মুখোশের হয়, যেখানে একজন কোরিয়ান আর্মস ডিলার দুইজন কোরিয়ান নাগরিক কে কিডন্যাপ করে। এদের মধ্যে একজন চিফ পুলিশ (হা চে-ইয়েনের বস) এবং আরেকজন সাংবাদিকের ছদ্মবেশে থাকা একজন এজেন্ট। কিডন্যাপর মিন তাদেরকে ব্যাংককের এক দ্বীপে লুকিয়ে রাখে।

এই বন্দীদের উদ্ধার করার জন্যেই মূলত হা এবং মিনের মধ্যে দরকষাকষি শুরু হয়।

কিন্তু যতই সময় যেতে থাকে মুভির কাহিনী ৩৬০° ঘুরে যেতে থাকে। টাকা কিংবা ক্ষমতা বা বিশেষ ক্ষমতার জন্যে এই কিডনাপিং করা হয়নি। কি জন্যে করা হয়েছে তা জানতে পারবেন একদম মুভির শেষের দিকে এসে।

মুভির মূল যে জিনিসটা আমার ভালো লেগেছে তা হল, স্টোরি বিল্ডাপ। একদম মুভির শুরু থেকে ভিন্ন সূত্র আস্তে আস্তে ছড়িয়ে, মুভির অন্তিম পর্যায়ে সেগুলোকে একসাথে জোড়া দেওয়া হয়েছে। এজন্যে মুভির কাহিনী তেমন একটা প্রেডিক্টেবল হয়নি। মুভির কাস্টিং ও ভালো ছিল। মূল দুই চরিত্রের মধ্যে যে মাইন্ড গেম চলছিল সেটা দুই অভিনেতা ও অভিনেত্রী ভালোভাবে উপস্থাপন করতে পেরেছেন।

কোরিয়ান মুভিগুলোর মেইন স্ট্রং পয়েন্ট, তাদের মাথা ঘুরানো প্লট আর তার সাথে স্টোরিটাকে ভালো ভাবে উপস্থাপন করার কৌশল। আর এর সাথে আরেকটা জিনিসের প্রশংসা না করলেই নয়, সেটা হল কোরিয়ান মুভিগুলোর ভিলেন। এদের ক্রাইমের ধরন-ধারণ যেমন ইউনিক তেমনি এদের কে এতটাই পাওয়ার ফুল ভাবে রিপ্রেজেন্ট করা হয় যা আসলেই অসাধারণ। ❤

The negotiation

“The negotiation” মুভিটি টুইস্টে ভরপুর একটি মুভি। সময় করে দেখে নিতে পারেন মুভিটি।

📌মুভির নাম: The negotiation (2018)

📌জনরা: ক্রাইম, একশন, থ্রিলার

📌অভিনয়েঃ  Ye-jin SonHyun BinYoung-nam Jang

📌ডিরেকশনঃ Jong-suk Lee

📌আইএমডিবি রেটিংঃ ৬.৫/১০

কোরিয়ান মুভি হওয়ায় সবগুলো মুভি আমি সাব টাইটেল ব্যাবহার করে দেখেছি। চাইলে আপনিও সাবটাইটেল ডাউনলোড করে দেখতে পারেন মুভিগুলো।

কোরিয়ান মুভি ও ড্রামা নিয়ে আরো পড়ুন

মন ছুঁয়ে যাওয়ার মত কিছু কোরিয়ান ড্রামা

অসাধারণ কিছু কোরিয়ান সিনেমা

তিনটি সুপারহিট কোরিয়ান মুভি

দেখতে পারেন বিশ্ববিখ্যাত কিছু অসাধারণ কোরিয়ান ড্রামা (পর্ব – ১)

দেখতে পারেন বিশ্ববিখ্যাত কিছু অসাধারণ কোরিয়ান ড্রামা (পর্ব – ২)

দেখতে পারেন বিশ্ববিখ্যাত কিছু অসাধারণ কোরিয়ান ড্রামা (পর্ব – ৩)

মন্তব্য
লোডিং...