এবার পুরো পৃথিবী বাংলায়

কম খরচে ঘুরে আসুন বাংলাদেশের সবচেয়ে সুন্দর পর্যটন স্পট কক্সবাজার ও হিমছড়ি

কক্সবাজার ও হিমছড়ি যাওয়ার কিছু ভ্রমণ Tips

300

- Advertisement -

পর্যটন স্থানগুলোর জনপ্রিয়তা বাড়ার সাথে সাথে বেড়ে উঠেছে এর খরচ। এখন কোথাও ঘুরতে যাওয়ার নাম করলে খরচের চিন্তাতেই আমরা অর্ধেক ভ্রমণের চিন্তা বাদ দিয়ে দিই। আজকে আমরা জানবো কিভাবে কম খরচে কক্সবাজার থেকে ভালো ভাবে ঘুরে আসা যাবে।

প্রথমত, চেষ্টা করবেন কর্ম দিবস গুলোতে যাওয়ার জন্য যেমন রবি থেকে বৃহস্পতি কারণ এই দিনগুলোতে হোটেলের ভাড়া খুবই কম থাকে এবং অফ-সিজনে যাওয়ার চেষ্টা করবেন

দ্বিতীয়ত, ভ্রমণের জন্য রাতকে নির্বাচন করুন এবং নন এসি গাড়ি যেমন  (ইউনিক, হানিফ, শ্যামলী) কে প্রাধান্য দিন। কারন রাতের তাপমাত্রাও কম থাকে অন্য দিকে আপনার সেই রাতের হোটেল ভাড়াও বেচে যাবে।

তৃতীয়ত, ট্রাভেল ব্যাগ এর পরিবর্তে কাধের ব্যাগকে প্রাধান্য দিন। এতে আপনার চলাচলে সুবিধা হবে।কারণ ট্রলি ধরনের ব্যাগগুলো ইউজ করলে আপনার চলাচলে অসুবিধা হতে পারে অথবা চলাচলে সীমাবদ্ধতা সৃষ্টি হতে পারে। পরিবার নিয়ে গেলে ভিন্ন কথা।

চতুর্থত, সৈকত থেকে অল্প কিছুদূর হোটেলটি নেয়ার চেষ্টা করবেন গলির মধ্যে হলেও সমস্যা নেই। প্রথমে একজন গিয়ে হোটেলটি দেখে আসবেন, হোটেল বুক করে আসবেন এবং আপনার রুমটি চেক করে আসবেন তারপর বাকিদের কে ডেকে নিয়ে আসবেন।ভুলেও সিএনজি, অটো রিকশাওয়ালার রেফারেন্সে কোন হোটেল নিবেন না কারন তারা বিভিন্ন হোটেল থেকে কমিশন পেয়ে থাকে এবং হোটেল মালিক এ ধরনের রিক্সাওয়ালাদের দেখলে হোটেলের ভাড়া দ্বিগুণ করে ফেলে।

- Advertisement -

পঞ্চমত, বীচ থেকে হেঁটে হেঁটে আসা যাওয়ার চেষ্টা করুন। এমন দূরত্বে হোটেল নির্বাচন করুন যেন হেঁটে যাওয়া আসা করা যায়। যদি অটোরিক্সা করে আসতে হয় তাহলে অবশ্যই অটো রিক্সায় উঠার পূর্বে দরদাম করে নিন।

ষষ্ঠত, খাবারের মূল আইটেমগুলো ভাগ করে খান। এক্ষেত্রে খরচ অনেক কমে আসবে। সস্তায় খাওয়ার চেষ্টা করুন। ভর্তা, ভাজি, সবজির সাথে শুঁটকির কোন আইটেম থাকতে পারে। মুরগীও খারাপ না কিন্তু ভুলেও চিংড়ি ও রূপচাঁদা মাছ অর্ডার করবেন না।

হিমছড়ি যেতে হলে কলাতলী মোড় থেকে লোকাল অটো গুলোতে উঠে যান। ভাড়া জনপ্রতি বিশ টাকা। যদি আপনারা বেশ কয়েকজন হন তাহলে যে কোন একটি লোকাল অটো ভাড়া করে চলে যান।

রাতের গাড়ি থাকলে দুপুরের আগেই হোটেল থেকে চেক আউট করে নিন। চেক আউট করলেও আপনার মালামাল নিয়ে সমস্যায় পড়তে হবে না। জিনিসপত্রগুলো হোটেলের চেক আউট পয়েন্টে রেখে নিশ্চিন্তে বাকি সময় ঘোরাঘুরি করতে পারবেন।

মনে রাখবেন, ভ্রমণের বাজেট কম হওয়ায় বিব্রত হওয়ার কিছু নেই। লোক দেখানো কোন ব্যাপার নয়, আপনার আনন্দটাই ভ্রমণের মূল উদ্দেশ্য। আর একটা সময় হয়ত আপনার হাতে প্রচুর অর্থ থাকতে পারে কিন্তু ভ্রমণের সময় নাও পেতে পারেন। তাই ভ্রমণের আনন্দটুকু পরিপূর্ণভাবে উপভোগ করতে একটুও ছাড় দেবেন না।

পোস্টটি আপনার ভালো লেগে থাকে অবশ্যই ভোট করবেন এবং পরবর্তীতে কোন পর্যটন স্পট নিয়ে জানতে চাচ্ছেন সে ব্যাপারে কমেন্ট করবেন। ধন্যবাদ, ভাল থাকবেন সবাই।

 

80%
Awesome
  • Design
মন্তব্য
লোডিং...